‘সূর্যবংশী’ রূপে আসছেন অক্ষয় কুমার

অনলাইন ডেস্কঃ

বলিউডের সুপারস্টার অক্ষয় কুমার। একের পর এক ব্লকবাস্টার হিট সিনেমা উপহার দিয়ে চলেছেন তিনি। তার ছবি মানেই প্রযোজকদের ভরসার বিরাট জায়গা। নাচ, গান, অ্যাকশন, কমেডি, রোমান্স- সব মিলিয়ে মশলাদার সিনেমার ফুল প্যাকেজ দেখা যায় অক্ষয়ের সিনেমায়। আবার বিষয় ভিত্তিক সিনেমাতেও অক্ষয়ের জুড়ি মেলা ভার।

সঙ্গত কারণেই তার ভক্ত দিন দিন বেড়েই চলেছে। বয়সকে জয় করে এই অভিনেতা চিরতরুণ হয়ে হাজির হতে যাচ্ছেন ‘সূর্যবংশী’ ছবিতে। যেখানে তাকে এক পুলিশ অফিসার চরিত্রে দেখা যাবে।

এ ছবির প্রচারণায় পিটিআইকে একটি সাক্ষাতকার দিয়েছেন তিনি। সেখানে অক্ষয় খোলামেলা কথা বলেছেন তার জীবনবোধ ও ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে। সেখানে তিনি বলেন, কোনো ধর্ম বিশ্বাস করেন না অক্ষয়। তিনি শুধু ভারতীয় হয়ে ওঠতে চান। আসন্ন সিনেমা ‘সূর্যবংর্শী’র গল্পকে কোনো ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হয়নি বলে জানান তিনি। বরং এই ‘ভারতীয়’ দৃষ্টিভঙ্গিই ফুটে উঠবে বড় পর্দায়।

পরিচালক রোহিত শেঠির কপ ইউনিভার্সের আসন্ন সিনেমা ‘সূর্যবংশী’। তার পুলিশি অ্যাকশন ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমা ছিল ২০১১ সালে অজয় দেবগণ অভিনীত ‘সিংহম’। এর দ্বিতীয় কিস্তি ছিল রণবীর সিং অভিনীত ‘সিম্বা’ (২০১৯)। ‘সিমবা’র সময়েই এক ঝলকে জানানো হয়েছিল এর পরের কিস্তিতে ‘সূর্যবংশী’ রূপে আসবেন অক্ষয় কুমার।

‘সূর্যবংশী’ প্রসঙ্গে অক্ষয় কুমার বলেন, ‘আমি কোনো ধর্মে বিশ্বাস করি না। আমি শুধু ভারতীয় হয়ে ওঠায় বিশ্বাস করি। আর সিনেমাটিও ঠিক এটাই দেখিয়েছে। ধারণাটি হলো, আমরা সবাই ভারতীয়। এছাড়া কে পারসি, কে হিন্দু, কে মুসলিম তা আমরা ধর্মের ভিত্তিতে বিবেচনা করিনি।’

‘সূর্যবংশী’ সাম্প্রতিক সময়ের সাম্প্রদায়িক অস্থিতিশীলতার ক্ষেত্রেও প্রাসঙ্গিক দাবি করে অক্ষয় বলেন, ‘এটি কাকতালীয় ঘটনা যে ছবিটি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। আমরা জেনেবুঝে এখন সিনেমাটি বানাইনি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *